বার্থডে গার্ল – জনের মধ্যবিধ জীবনে

লন্ডনের অদূরেই সেন্ট আলবান্সে বেশ একটা মধ্যবিধ জীবন কাটছিলো লাজুক ব্যাঙ্ক কর্মচারী জন বাকিংহামের। সুন্দর একটা ঘর, ব্যাংকে চাকরী বা গাড়ি সবই ছিলো, ছিলো না সেসবে ভাগ করার কেউ। নিঃসঙ্গ প্রেমহীন জীবন তার। জন ইন্টারনেটে যোগাযোগ করলো রাশিয়ান মেইল-অর্ডার ব্রাইড সার্ভিসে এবং স্থির করলো অবিবাহিত জীবনের ইতি টানতে। স্বপ্নে লালন করা সেই মানুষটার কাছে জনের চাওয়া খুব সামান্য, তাকে রাঁধতে জানতে হবে আর কথা বলতে হবে জনের ভাষায়, ইংরেজিতে। বাঁধ সাধলো সেখানেই! রাশিয়ান নাদিয়া না জানতো রাঁধতে, না জানতো ইংরেজিতে কথা বলতে শুধুমাত্র ‘ইয়েস’ শব্দটি ছাড়া। লাজুক, বিনয়ী জনের ঠিক বিপরীত নাদিয়া। দুজনের ভাষা দুজনের কাছে অচেনা ঠেকলেও খুব বেশি সময় লাগলো না তাদের চেনা গন্ডি পেরিয়ে ভালোলাগায় যেতে।

এরপর এলো নাদিয়ার জন্মদিন, জন অনেকটা আয়োজন করে প্রস্তুতি নিলো জন্মদিন পালন করার। হঠাৎ সেই আয়োজনে এসে যোগ হলো আরো দুজন লোক। তাদের একজন নাদিয়ার ভাই (ইয়ুরি) আর অন্যজন তার বন্ধু (এলেক্সি)। জন্মদিন পালন, পুরনো স্মৃতি রোমন্থন, আড্ডা, ক্যামেরায় ছবি তোলা, বনভোজন, নদীতে সাঁতরানো করে সময় কাটছিলো। দু’দিন পর হঠাৎ এলেক্সি অজ্ঞাত কারণে ক্ষ্যাপে ওঠে ইয়ুরি ও জনের সামনে নাদিয়াকে জিম্মি করে মুক্তিপণ দাবি করে বসে। এমন অবস্থায় জন নাদিয়াকে বাঁচাতে বাধ্য হয়ে ব্যাংক চুরি করে যেখানে সে গত দশ বছর বিশ্বস্ততার সাথে কাজ করে আসছে।

birthday_girl_nicole_kidman_jez_butterworth_006_jpg_xebi

পরিচালক যেজ বাটারওর্থের এটি দ্বিতীয় ছবি। তিনি মূলত মঞ্চের লোক। পাশাপাশি একজন চিত্রনাট্য লেখকও। পরিচালক হিসেবেই সম্ভবত পরিচিত সবচেয়ে কম, পুরো ক্যারিয়ারে কাজ মাত্র দু’টি। আবার ‘বার্থডে গার্ল’ একদম আন্ডাররেটেড একটা ছবি। পরিচালক হিসেবে ছবিটিতে তিনি পেয়েছেন মিশ্র সমালোচনা। কেউ কেউ বলেছেন এই ধরণের অফবিট ড্রামা আরো বেশি করে স্তুতির যোগ্য, অন্যদিকে কেউ বলেছেন গল্পটা ঠিক জমেনি। গল্প টম ও যেজ বাটারওর্থ; দুই ভাইয়ের লিখা। প্রযোজনায় ছিলেন আরেক ভাই স্টিভ বাটারওর্থ।

নিকোল কিডম্যানের রাশিয়ান ভাষায় নিখুঁত উচ্চারণের কথা আলাদাভাবে যোগ করতে হয়। পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়া কেবল সেটে বসে রাশিয়ান এম্বেসির এক ভদ্রমহিলার কাছে শেখে ছবিতে এমন উচ্চারণ আনা সত্যি স্তুতি যোগ্য। জনরা বদলের ক্ষেত্রে একটি চিত্রনাট্যে যে গতির প্রয়োজন পড়ে সেটি ছবিতে পাওয়া যায় না। ছবির প্রেক্ষাপট যথার্থ নয় তবে ধীরলয়ের চিত্রনাট্য আর কিছু অসঙ্গত কারণ সত্ত্বেও ভালো অভিনয়-যোগে ছবিটি উপভোগ্য। সহজ গল্প সহজ পন্থায় উপস্থাপন। ছবির রোমান্টিকতা পুরনো ঢঙে তৈরি, যেখানে নারী থাকবে রহস্যময়ী আর পুরুষ হবে কিঞ্চিত হাবাগোবা টাইপ!

পুরো শহরে ছড়িয়ে পড়ছে চুরির খবর! জন কি নাদিয়াকে বাঁচাতে পারবে? নাকি গল্প চেনা ছক এড়িয়ে যাবে? কী ঘটবে জন-নাদিয়ার জীবনে?

Dear Nadia,
You are only girl in world. I dream to talk. What will happen?
– John


2

Birthday Girl (2001)
Running time: 93 min ● Release date: 01 February 2002 ● Color: Color ● Country: United Kingdom ● Language: English, Russian ● Genre: Drama/Crime ● Producer: Steve Butterworth, Diana Phillips ● Cinematographer: Oliver Stapleton ● Editor: Christopher Tellefsen ● Art: Rebecca Holmes, Diann Wajon ● Music: Stephen Warbeck ● Casting: Jina Jay ● Writer: Tom Butterworth, Jez Butterworth ● Cast: Nicole Kidman, Ben Chaplin, Vincent Cassel, Mathieu Kassovitz ● Director: Jez Butterworth


Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s